মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম
আশুলিয়া প্রেসক্লাব চত্বরে ককটেল বিষ্ফোরন সাভার ও আশুলিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে বিদেশী বিয়ার ও ট্যাপেন্টাডল ও অস্ত্র সহ ৬জন আটক দুই শিক্ষার্থীকে বেঁধে মারধর, শিক্ষক আটক চলমান মহামারিই শেষ নয়, ভবিষ্যতের জন্যেও বিশ্বকে প্রস্তুত থাকতে হবে : ডব্লিওএইচও দেশের বিভিন্ন রুটে কমিউটার, মেইল, এক্সপ্রেস এবং লোকাল ট্রেন পরিচালনার সিদ্ধান্ত দেশে করোনা সংক্রমণ কমেছে।। সরকার পরিবর্তন চাইলে বিএনপিকে নির্বাচন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।।কাদের জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় প্রতিশ্রুত চাঁদার পরিমাণ বাড়াতে হবে : প্রধানমন্ত্রী চাঁপাইনবাবগঞ্জে আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা আজ জিসিএ’র আঞ্চলিক কার্যালয়ের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অবস্থান, আত্মহত্যার হুমকি

  • সর্বশেষ আপডেট বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২০, ২.২৯ পিএম
  • ৮ বার পড়া হয়েছে

আলোকিত কন্ঠ ডেস্ক।। বগুড়ার সোনাতলায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছে এক মাদ্রাসাছাত্রী (১৭)। ওই ছাত্রীর অভিযোগ, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার সঙ্গে কয়েকবার শারীরিক সম্পর্ক করেন প্রেমিক বাদশা নামে ওই প্রেমিক।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার দিগদাইড় ইউনিয়নের লোহাগাড়া গ্রামের মাহফুজার রহমানের ছেলে বাদশা মিয়ার সঙ্গে মাদ্রাসার দশম শ্রেণির ওই ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। এরই একপর্যায়ে গতকাল বুধবার সন্ধায় বিয়ের দাবিতে ওই মাদ্রাসাছাত্রী প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে অবস্থান নেয়। এসময় প্রেমিক বাদশা মিয়ার পরিবারের লোকজন তাকে বাড়ি থেকে বের করে দিলে ওই ছাত্রী পাশের সাবেক ইউপি সদস্য খাজা নাজিম উদ্দিনের বাড়িতে অবস্থান নেয়।

ওই মাদ্রাসাছাত্রীর দাবি, প্রেমিক বাদশা মিয়ার সঙ্গে তার দুই বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। এর মধ্যে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার সঙ্গে কয়েকবার শারীরিক সম্পর্ক করেন প্রেমিক বাদশা। সম্প্রতি প্রেমিককে বিয়ের জন্য চাপ দিলে তিনি সাত লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। কিন্তু প্রেমিকের চাহিদা মতো যৌতুকের টাকা দেওয়ার সামর্থ তার পরিবারের নেই। তাই বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছে ওই ছাত্রী।

ওই মাদ্রাসাছাত্রী বলে, ‘বাদশা মিয়া আমাকে বিয়ে না করলে আমি আত্মহত্যা করব।’

স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য খাজা নাজিম উদ্দিন বলেন, ‘দুপক্ষকে একত্রিত করে মীমাংসার উদ্যোগ নেওয়া হবে।’

দিগদাইড় ইউপি চেয়ারম্যান আশী তৈয়ব শামীম বলেন, বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য ফোন করে তাকে জানিয়েছে।

সোনাতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মাসউদ চৌধুরী বলেন, বিষয়টি তিনি জানেন না। তবে খোঁজ নিয়ে দেখার কথা জানান ওসি।

আপনার মতামত দিন:

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরও সংবাদ
themebaalokitokant1852550985
©2019-20 All rights reserved Alokitokantho