সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ১২:০৫ অপরাহ্ন

এ্যারাইল্যাকোনা হাওরে তলিয়ে গেল ১২’শ মেট্রিকটন আধা পাকা বোরো ধান

  • সর্বশেষ আপডেট শনিবার, ৯ এপ্রিল, ২০২২, ১১.৩৬ পিএম
  • ৫৭ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্ট:

ফসল রক্ষা বাঁধ ভেঙ্গে সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে এ্যারাইল্যাকোনা হাওরে আধা পাকা বোরো ধান তলিয়ে গেল।শুক্রবার দুপুরের দিকে হাওরের ওই বাঁধ ভেঙ্গে প্রায় ১২’শ মেট্রিকটন আধা পাকা বোরো ধান তলিয়ে যায়।কৃষকদের অভিযোগ সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ড,তাহিরপুর উপজেলা প্রশাসনকে প্রতিবছর অনুরোধ পত্র,লিখিত,মৌখিকভাবে আবেদন করার পরও  এ্যারাইল্যাকোনা,গণিয়াকুঁড়ি সহছোট বড় আরো ১০ থেকে ১২টি হাওরের বোরো ফসল রক্ষায় বাঁধ নির্মাণে নিদ্রিষ্ট প্রাক্কলন,ডিজাইজন,এলাইটম্যান্ট তৈরী,পাউবো থেকে বাঁধ নির্মাণে কোন রকম বরাদ্দই দেয়া হয়নি।

শুক্রবার বিকেলে মরজমিনে গেলে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা নিজেদের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে উপজেলার বিনোদপুর গ্রামের কৃষক ইমানুল হক,তেরঘরের কৃষক রমজান আলী গণমাধ্যমকে বলেন,এ্যারাইল্যাকোনা বোরো ফসলরক্ষা বাঁধসহ আরো একাধিক ফসলরক্ষা বাঁধ নির্মাণে পানি উন্নয়ন বোর্ড উদাসিনতার পরিচয় দিয়ে আসছে বছরের পর বছর ধরে,যে কারনে বোরো ফসল গোলায় তোলার দিন কয়েক পুর্বে উপজেলা প্রশাসনের আকস্মিক নির্দেশে ইউনিয়ন পরিষদকে প্রতি বছর বাঁধ নির্মাণের দায় বহন করতে হচ্ছে কোন রকম অর্থ বরাদ্দ ছাড়াই।

উপজেলার রতনপুর গ্রামের কৃষক মো. উমর আলী  বলেন,এ্যারলিকোনা হাওরে বাগলী , রতনপুর ,বিনোদপুর, তেরঘর সহ আরো কয়েকটি গ্রামের কৃষকদের প্রায় সাড়ে ৫’শ একর জমির আধা পাকা বোরো ধানকৃষকদের সামনেই দিনদুপুরে বাঁধ ভেঙ্গে তলিয়ে গেছে।এমনিভাবে উপজেলা প্রশাসন,পাউবোর উদাসিনতার কারনে বাঁধ নির্মাণ কাজ এড়িয়ে যাওয়ায় প্রতি বছর বাঁধ ভেঙ্গে বোরো ফসলহানীর কান্নার মাথম চলে কৃষকদের ঘরে ঘরে।তিনি আরো বলেন, বোরো ফসল রক্ষায় পাউবো ও উপজেলা প্রশসাসনকে দায়িত্ব দিয়েছেন সরকার কিন্তু কৃষকদের এমন ক্ষতির দায় নেবে কে?।

তাহিরপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো: হাসান উদ দৌলা  বলেন,এ্যারাইল্যাকোনা বাঁধ ভেঙ্গে যাওয়ায় তাহিরপুরের উপকারভোগী কৃষক পরিবারগুলোর প্রায় সাড়ে ৫’শ বিঘা জমির আধা পাকা বোরো ধান পানিতে তলিয়ে গেছে।পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন সোসাইটির স্থানীয় প্রতিনিধি বলেন,এ্যারাইল্যাকোনা হাওরে বাঁধ ভেঙ্গে স্থানীয় কৃষকদের প্রায় এগারো (১১) শ থেকে বারো (১২০০)’শ মেট্রিকটন আধা পাকা বোরো ধান পানিতে তলিয়ে গেছে।

পাউবোর সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা বাস্তবায়ন ও মনিটরিং কমিটির সদস্য সচিব দায়িত্বপ্রাপ্ত উপ সহকারী প্রকৌশলী (পওর-১) মো: আসাদুজ্জামান  বলেন, এ্যারাইল্যাকোনা সহ আরো কয়েকটি ছোট ছোট হাওরের বোরো ফসলরক্ষা বাঁধ নির্মাণ কাজ পানি উন্নয়ন বোর্ডের আওতাভুক্ত রাখা হয়নি।

তাহিরপুর উপজেলার উওর শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যন মো. আলী হায়দার  বলেন,উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও)’র নির্দেশে কাবিকার কিংবা টিআর সহ অন্য যে কোন বরাদ্দ থেকে ব্যায় পরিশোধের আশ্বাসে ইউনিয়ন পরিষদের তদারকিতে দুই দফায় এ্যারাইল্যাকোনা হাওরের ফসলরক্ষা বাঁধে প্রায় সাড়ে লাখ টাকা ব্যয়ে বাঁধ নির্মাণ করেছিলাম।

শুক্রবার বিকেলে তাহিরপুর উপজেলা বাস্তবায়ন ও মনিটরিং কমিটির সভাপতি এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোঃ রায়হান কবির  বলেন,এ্যারাইল্যাকোনা ফসলক্ষা বাঁধ নির্মাণ কাজ উওর শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিলো কিন্তু শুক্রবার বাঁধটি ঠিকেনি বলে জেনেছি।

আপনার মতামত দিন:

শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরির আরও সংবাদ
themebaalokitokant1852550985
©2019-20 All rights reserved Alokitokantho